বাংলাদেশ, , সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২

অনগ্রসর বাঙালি মুসলমানকে সুশিক্ষার মাধ্যমে আলোকিত জীবন দান করেছেন মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদী

  প্রকাশ : ২০২১-১০-২৪ ১৫:৩৯:৪১  

মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদীর ৭১তম মৃত্যুবার্ষিকীতে বক্তারা :  অনগ্রসর বাঙালি মুসলমানকে সুশিক্ষার মাধ্যমে
আলোকিত জীবন দান করেছেন মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদী

পরিস্হিতি২৪ডটকম : ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের পুরোধা ব্যক্তিত্ব, সমাজসংস্কারক, রাজনীতিবিদ, সাহিত্যিক, সাংবাদিক ও বঙ্গীয় আইন পরিষদের সদস্য মাওলানা মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদীর ৭১তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ২৪ অক্টোবর ২০২১ রবিবার সকাল ৯টায় মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদী গবেষণা পরিষদের উদ্যোগে নগরীর মোমিন রোডস্থ কদম মোবারক এতিমখানার সম্মুখে ইসলামাবাদীর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, ফাতেহা পাঠ ও সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিশিষ্ট সমাজসেবক, শিক্ষানুরাগী ও গবেষণা পরিষদের সভাপতি সোহেল মো. ফখরুদ-দীনের সভাপতিত্বে এ সভার আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন বিশিষ্ট ব্যাংকার লায়ন সি এস কে সিদ্দিকী, বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ও লেখক মো. আবদুর রহিম, আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল হুদা চৌধুরী, চন্দনাইশ সমিতি-চট্টগ্রামের সভাপতি আবু তাহের চৌধুরী, লায়ন দুলাল কান্তি বড়ুয়া, সাংবাদিক এ কে এম আবু ইউসুফ, কদম মোবারক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আবু জহুর, চৌধুরী মোহাম্মদ শফি, অধ্যক্ষ মুক্তাদির আজাদ চৌধুরী, মাওলানা রেজাউল করিম তালুকদার, সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, সুফি মোহাম্মদ ফারুক, দেলোয়ার হোসেন মানিক, মোহাম্মদ ওসমান গণি প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বলেছেন, অনগ্রসর বাঙালি মুসলমান জাতিকে সুশিক্ষার মাধ্যমে আলোকিত জীবন দানের জন্য মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদী আজীবন কাজ করেছেন। তিনি চট্টগ্রামের দেয়াঙ পাহাড়ে জাতীয় আরবি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের জন্য জায়গা নির্ধারণ করে এতে প্রাথমিক কাজ শুরু করেছিলেন। চট্টগ্রামের কদম মোবারক মুসলিম এতিমখানা তাঁরই অবদানের ফসল। তিনি ভারতীয় উপমহাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের জন্য জীবনবাজি রেখে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর সাথে কাজ করেছেন, জেল খেটেছেন। ভারতীয় উপমহাদেশের মুসলমান কর্তৃক প্রকাশিত প্রথম দৈনিক পত্রিকা হাবলুল মতিন প্রকাশ করেন। মাওলানা ভাসানীর মতো মানুষ ইসলামাবাদীর ভাবশিষ্য ছিলেন। ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ ভাষাবিজ্ঞানী মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদীর আদর্শ চর্চা করতেন। মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদী বাংলা ভাষা চর্চার জন্য লেখনির মাধ্যমে অবিস্মরণীয় ভূমিকা রাখেন। চট্টগ্রাম তথা বঙ্গদেশের ইতিহাসের তাঁর মতো দেশপ্রেমিক রাজনীতিবিদ অদ্বিতীয়, এখনো আমরা দেখতে পাই না। কৃষিভিত্তিক সমাজ ও দেশ উন্নয়নের জন্য তিনি নিবেদিত ছিলেন। মুসলমান অনগ্রসর জাতিকে শিক্ষার জন্য তিনি কাজ করেছেন। এতিম-অনাথ শিশুদের শিক্ষার উন্নয়নে তাঁর ভূমিকা অপরিসীম। সভা শেষে ইসলামাবাদীর সমাধিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ, ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ ও রাজনীতিবিদ মাওলানা রেজাউল করিম তালুকদার।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি



ফেইসবুকে আমরা