বাংলাদেশ, , সোমবার, ২৭ জুন ২০২২

চট্টগ্রাম হবে পরিকল্পিত নগরী : মেয়র

  প্রকাশ : ২০১৯-০১-১৭ ১৯:১৭:০১  

পরিস্হিতি২৪ডটকম : বৃহস্পতিবার (১৭ জানুয়ারি) চসিক সম্মেলন কক্ষে ফইল্ল্যাতলী বাজার কিচেন মার্কেট নির্মাণের লক্ষ্যে সিটি করপোরেশনের সঙ্গে বাংলাদেশ মিউনিসিপ্যাল ডেভলপমেন্ট ফান্ডের (বিএমডিএফ) চুক্তি সই অনুষ্ঠানে চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন সরকার পর্যায়ক্রমে বাণিজ্যিক রাজধানী খ্যাত চট্টগ্রামকে পরিকল্পিত নগর হিসেবে গড়ে তুলছে বলে মন্তব্য করেছেন
চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামশুদ্দোহা ও বিএমডিএফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ হাসিনুর রহমান চুক্তিতে সই করেন।
চুক্তি অনুযায়ী, ২০ কোটি ৬৯ লাখ টাকায় ৩০ দশমিক ৮৪ গণ্ডা জমির ওপর ১০ তলা ভিত্তির ওপর ৪ তলা ভবন নির্মাণ করা হবে। যেখানে থাকবে পার্কিং, কিচেন বাজার, দোকান, সুপারশপ, হেলথ কেয়ার সেন্টার, সুইমিং পুল ও অফিস। এর মধ্যে ৯০ শতাংশ বিশ্বব্যাংক অর্থায়ন করবে, ১০ শতাংশ দেবে চসিক।

মেয়র বলেন, নগরজুড়ে বাজার বসছে। হকার উচ্ছেদ করছি। তারা রিকশাভ্যানে বাজার সাজিয়ে সড়কে জায়গা দখল করছে। যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। জনদুর্ভোগ বাড়ছে। তাই অ্যাকশনে যাচ্ছি আমরা। ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

রিকশাভ্যান শৃঙ্খলার মধ্যে নিয়ে আসা হচ্ছে উল্লেখ করে মেয়র বলেন, ভ্যানে কী কী পণ্য বিক্রি করতে পারবে তা নির্ধারণ করে দেওয়া হবে। সময় ঠিক করে দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, চট্টগ্রামে খেলার মাঠ কম। বাকলিয়ায় কর্ণফুলী নদীর তীরে স্পোর্টস কমপ্লেক্স নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এর ফলে চট্টগ্রামের ক্রীড়াঙ্গনের পাশাপাশি সবাই উপকৃত হবে।

হাসিনুর রহমান বলেন, চসিকের উন্নয়ন সহযোগী হতে পেরে এমডিএফ গর্বিত। বিশ্বব্যাংকের টাকায় প্রকল্প বাস্তবায়নে সময় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ বিষয়ে আমরা সচেষ্ট থাকবো। যে গতিতে দৌড়ানোর কথা ছিল তার চেয়ে বেশি গতিতে দৌড়াতে হবে। একইসঙ্গে কাজের মানে আপস করা যাবে না। প্রকল্প সঠিক সময়ে সুন্দরভাবে সম্পন্ন হলে চসিকের আরও অনেক উন্নয়ন প্রকল্পে অর্থায়ন করবে বিশ্বব্যাংক।

শৈশবের স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, একসময় চট্টগ্রাম খুব পরিচ্ছন্ন ছিল। জলাবদ্ধতা ছিল না। পরিকল্পিত নগরায়ন করলে চট্টগ্রাম সৌন্দর্য ফিরে পাবে। অপরিচ্ছন্নতা ও জলাবদ্ধতা থাকবে না। বন্দরনগরী হিসেবে চট্টগ্রামের গৌরব অক্ষুণ্ন থাকবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামশুদ্দোহা, সচিব আবুল হোসেন, প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্নেল মহিউদ্দিন আহমেদ, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম, নির্বাহী প্রকৌশলী জসিম উদ্দিন, মনজুরুল ইসলাম তালুকদার, বিপ্লব দাশ প্রমুখ।

চট্টগ্রামকে ক্লিন, গ্রিন, পরিবেশ ও পর্যটনবান্ধব করার লক্ষ্যে ক্যাপিটাল ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান (সিআইপি) করা হয়েছে। এর আওতায় ২৭ নম্বর দক্ষিণ আগ্রাবাদে ৪৩ কোটি টাকায় ১৫ তলা ভিত্তির ওপর ৫ তলা মাল্টিপারপাস বহুতল বাণিজ্যিক কমপ্লেক্স নির্মাণের লক্ষ্যে ২০১৮ সালের ৮ নভেম্বর চুক্তি হয়েছে বিএমডিএফের সঙ্গে।

এ ছাড়া ফিরিঙ্গিবাজারে ১৯ কোটি ৬৯ লাখ টাকায় ১০ তলা ভিত্তির ওপর ৩ তলা কিচেন মার্কেট এবং ৩৫ নম্বর বক্সিরহাট ওয়ার্ডের বাকলিয়ায় ৫৫ কোটি ৪৮ লাখ টাকায় ৬ একর জায়গায় স্পোর্টস কমপ্লেক্স নির্মাণ প্রকল্পের চুক্তি সই হবে বিএমডিএফের সঙ্গে।



ফেইসবুকে আমরা