বাংলাদেশ, , রোববার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

সাতকানিয়া আদর্শ মহিলা কলেজে এইচএসসি পরীক্ষার্থী ও সাবেক অধ্যক্ষের বিদায় সংবর্ধনা

  প্রকাশ : ২০২৩-০৮-২৩ ১৬:৩১:১৯  

পরিস্থিতি২৪ডটকম : বর্ণাঢ্য আয়োজনে সম্পন্ন হলো সাতকানিয়া আদর্শ মহিলা কলেজের ২০২৩ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থী ও সাবেক অধ্যক্ষ শিব শংকর শীলের বিদায় সংবর্ধনা।

মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) কলেজ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের (চট্টগ্রাম সার্কেল) তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ইঞ্জিনিয়ার মো. জালাল উদ্দীন চৌধুরী।

কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি নুরুল আবছার চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও অধ্যাপক মোহাম্মদ জয়নাল আবেদীন, আরিফুর রহমানের সঞ্চালনায় বিদায় এতে স্বাগত বক্তব্য দেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মুহাম্মদ রুহুল কাদের, বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর, চট্টগ্রামের নির্বাহী প্রকৌশলী প্রদীপ কুমার সরকার।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি মো. জালাল উদ্দীন চৌধুরী বলেন, ‘অদূর সম্ভাবনাকে বাস্তবায়নের জন্য স্বপ্ন নিয়ে, মেধা ও পরিশ্রমের সমন্বয়ে এগিয়ে যেতে হবে। এই ধারাবাহিকতায় দেশ ও জাতির কল্যাণে নিবেদিত হওয়ার মাধ্যমে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়া সম্ভব হবে।’

এসময় নুরুল আবছার চৌধুরী যৌতুক, মাদক ও বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে শপথ পাঠ করান। তিনি বলেন, ‘স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে ভালো ফলাফল ও পড়াশোনায় ধারাবাহিকতার বিকল্প নেই। সাতকানিয়া উপজেলাকে শিক্ষানগরী হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে নিঃস্বার্থে কাজ করে যাচ্ছি। তাই গরিব ও অসহায় শিক্ষার্থীর জন্য এই কলেজ রীতিমতো সহায়তা দিয়ে আসছে।’ তিনি ঘোষণা দেন, একাদশে ভর্তির ক্ষেত্রে বিজ্ঞান বিভাগে ৪, মানবিকে ৫, ব্যবসায় শিক্ষা ও বিএমটিতে ৪ দশমিক ৫ পয়েন্ট হলে বিনামূল্যে ভর্তি হতে পারবে। এছাড়া গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য বিনামূল্যে বই ও চিকিৎসাসেবা দেওয়া হবে। কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের কোনো শিক্ষার্থী মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেলে লেখাপড়ার সম্পূর্ণ খরচ কলেজ কতৃপক্ষ বহন করবে বলেও ঘোষণা দেন তিনি। কলেজের বিএমটি শাখা এমপিওভুক্ত ও কলেজ এইচএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র হওয়ায় মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী, শিক্ষা উপমন্ত্রী, স্থানীয় সাংসদ, বোর্ড চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

বিশেষ অথিতির বক্তব্যে প্রদীপ কুমার সরকার বলেন, ‘নুরুল আবছার চৌধুরী সাতকানিয়া আদর্শ মহিলা কলেজকে যেভাবে সাজিয়েছেন, তা স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে সহায়ক হবে।’

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন বিদায় সংবর্ধিত সাবেক অধ্যক্ষ শিব শংকর শীল, নুরুল ইসলাম, গভর্নিং বডির সদস্য মো. নজরুল ইসলাম, মোহাম্মদ কামাল উদ্দীন। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিজয় স্মরণী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সহকারী অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, ইসমাঈল মুহাম্মদ রাশেদ। শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাকিয়া সোলতানা, রহিমা আকতার, জান্নাতুল আফরাইম।

বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা কবিতা ও গান পরিবেশন শেষে অতিথিদের সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়। বিদায়ী শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতিকে শিক্ষার ফেরিওয়ালা উপাধি দিয়ে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়। কলেজে নবাগত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে মানপত্র পাঠ করেন পরীক্ষার্থী নায়লা বিনতে আলম, পরীক্ষার্থীদের উদ্দেশে মানপত্র পাঠ করেন জান্নাতুল আফরাইম। অনুষ্ঠানে বিগত ২০২২ সালে অনুষ্ঠিত বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি



ফেইসবুকে আমরা