বাংলাদেশ, , সোমবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২২

ইপসা’র কার্যক্রম পরিদর্শনে বিএনএফ চেয়ারম্যান : টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জনে এনজিওসমূহ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে

  প্রকাশ : ২০২২-১০-০৪ ১৩:৪২:৩৪  

বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন-বিএনএফ চেয়ারম্যানের ইপসা’র কার্যক্রম পরিদর্শন ও মতবিনিময় সভায় বক্তারা : টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জনে এনজিওসমূহ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে

পরিস্থিতি২৪ডটকম : গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থ মন্ত্রণায়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন (বিএনএফ)’র সারাদেশ ব্যাপি বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বা এনজিওদের মাধ্যমে টেকসই উন্নয়ন আভীষ্ট অর্জনে বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে আসেছে। বাংলাদেশ ইতিমধ্যে মান-সম্পন্ন মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। দেশের দারিদ্রের হার হ্রাস ও বাংলাদেশকে একটি উন্নত দেশ হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষে বর্তমান সরকার ঘোষিত ভিশন ২০৪১ বাস্তবায়নে বেসরকারী স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাসমূহ যুগোপযোগী প্রকল্প বস্তবায়ন করছে এবং স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখবে। সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা-এমডিজি অর্জনে এনজিওসমূহ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা-এসডিজি অর্জনেও সরকারের পাশাপাশি এনজিও সমূহ গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন – বিএনএফ’র সহযোগিতায় এনজিওসমূহ পিছিয়েপড়া জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে দেশব্যাপী তৃণমূল পর্যায়ে করে যাচ্ছে এবং টেকসই সামাজিক উন্নয়নসহ তথ্য-প্রযুক্তি নির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। দেশের উন্নয়ন রূপকল্প বাস্তবায়নে সরকারের অগ্রণী ভূমিকার পাশাপাশি সহায়ক হাত হিসেবে এনজিওসমূহ উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে থাকে। সততা ও একনিষ্ঠতার সাথে কার্যক্রম বাস্তবায়ন করলে যেকোন কাজের সফলতা আসবে। ইপসা’র উদ্যোগে কক্সবাজার জেলায় বাস্তিবায়িত বিভিন্ন কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে ইপসা কক্সবাজারে বিভিন্ন সমাজ উন্নয়ন ও মানবিক কার্যক্রম বিষয়ে আলোচনা সভায় বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন-বিএনএফ’র চেয়ারম্যান, সাবেক সচিব মোঃ রেজাউল আহসান উপরোক্ত মতামত প্রদান করেন।

বিএনএফ’র চেয়ারম্যান সাবেক সচিব মোঃ রেজাউল আহসান কক্সবাজারে ইপসা’র উন্নয়ন ও মানবিক কার্যক্রম পরিদর্শন করছেন।

ইপসা’র সহকারি পরিচালক ও হেড অব রোহিঙ্গা রেসপন্স প্রোগ্রাম মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম, ইপসা কক্সবাজারের ফোকাল পার্সন মোহাম্মদ হারুন, ইপসা’র প্রজেক্ট কোঅর্ডিনেটর শমসের উদ্দিন মোস্তফা, কক্সবাজার সদরের উপজেলা ম্যানেজার আবিদুর রহমান, রামু উপজেলা ম্যানেজার চিম্ময়ী তালুকদার, মানিটরিং এন্ড ইভাল্যুয়েশন অফিসার সপ্তর্ষী বড়ুয়া, ফিন্যান্স এন্ড এডমিন অফিসার আবদুল কাদের, ইপসা এইচআরডিসি-কক্সবাজার ক্যাম্পাসের ইন-চার্জ বাদল শেখ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভার পূর্বে বিএনএফ’র চেয়ারম্যান মোঃ রেজাউল আহসান ইপসা রামু উপজেলায় বাস্তবায়িত বিভিন্ন কার্যক্রম পরিদর্শন করেন এবং সংশ্লিষ্ট অংশীজনের সাথে মতবিনিময় করার পাশপাশি তিনি ইপসা যুবদের দক্ষতাবৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে তিনি দক্ষতা বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণে বিএনএফ’র সহযোগিতার ক্ষেত্রসমূহ উল্লেখ করেন এবং এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। এখানে উল্লেখ্য যে, ইপসা ১৯৮৫ সালে আন্তর্জতিক যুব বর্ষে প্রতিষ্ঠাতা প্রধান নির্বাহী মোঃ আরিফুর রহমানের নেতৃত্বে প্রতিষ্ঠা লাভ করে প্রায় ৩ দশকের অধিক কাল ধরে বৃহত্তর চট্টগ্রামে বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে আসছে। ইপসা বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠ কাল থেকে সহযোগি সংস্থা হিসেবে সামাজিক ও মানবিক উন্নয়নমূলক বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। ইপসা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের উন্নয়ন প্রতিষ্ঠান পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ)’র সহযোগি সংস্থা হিসাবে বহত্তর চট্টগ্রামে বিভিন্ন সমাজ উন্নয়ন, দারিদ্র্য বিমোচন এবং অর্থনৈতিক ক্ষমতায়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। পাশাপাশি ইপসা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীন এনজিও বিষয়ক ব্যুরো,র নিবন্ধিত একটি বেসরকারি সমাজ উন্নয়ন ও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। ইপসা জাতিসংঘের অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদ ”টহরঃবফ ঘধঃরড়হং ঊপড়হড়সরপ ধহফ ঝড়পরধষ ঈড়ঁহপরষ (টঘ ঊঈঙঝঙঈ)” এর কনসালটেটিভ স্ট্যাটাস প্রাপ্ত একটি স্থায়ীত্বশীল উন্নয়নের জন্য সংগঠন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এটুআই প্রকল্পের সহযোগি সংস্থা হিসেবে ইপসা তৃণমূল পর্যায়ে তথ্য-প্রযুক্তির ব্যাবহার ও উন্নয়ন এবং তথ্য-প্রযুক্তিতে প্রতিবন্ধী ব্যাক্তিদের প্রবেশগম্যতা বিষয়ে কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে।
প্রেস বিজ্ঞপ্তি



ফেইসবুকে আমরা