বাংলাদেশ, , বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে আপন জুয়েলার্সের ৩ মালিককে ফের দুদকে তলব

  প্রকাশ : ২০১৯-১১-২৬ ১৬:৫০:৪৮  

পরিস্হিতি২৪ডটকম : অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে আপন জুয়েলার্সের মালিক তিন ভাই দিলদার আহমেদ সেলিম, গুলজার আহমেদ এবং আজাদ আহমেদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক)।

আজ মঙ্গলবার দুদকের প্রধান কার্যালয়ে থেকে পাঠানো এবারের নোটিসে তাদেরকে আগামী ২৭ ও ২৮ নভেম্বর এবং ১ ডিসেম্বর হাজির হতে বলা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রনব কুমার ভট্টাচার্য বলেন, চিঠিতে তাদের আয়কর নথি, দেনা ও ব্যাংক ঋণ সংক্রান্ত নথিপত্র ও দুদকে দাখিলকৃত সম্পদের আয়ের উৎস সংক্রান্ত কাগজ-পত্রসহ হাজির হতে বলা হয়েছে।

তলবকৃতদের মধ্যে দিলদার আহমেদ সেলিমকে ২৭ নভেম্বর, গুলজার আহমেদকে ২৮ নভেম্বর এবং আজাদ আহমেদকে ১ ডিসেম্বর হাজির হতে বলা হয়েছে।

দীর্ঘ দুই বছর পর আবারও দ্বিতীয় দফায় তাদের তলব করলো সংস্থাটি। এর আগে ২০১৭ সালের ১৬ অক্টোবর তাদেরকে প্রথম দফায় তলবি নোটিশ দেওয়া হয়েছিল।

দুদক সূত্রে জানা যায়, আপন জুয়েলার্সের স্বর্ণ কেলেঙ্কারির পর প্রতিষ্ঠানটির মালিকদের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনজনিত দুর্নীতির বিষয়ে দুদক আইনি ব্যবস্থা নিতে শুল্ক গোয়েন্দা থেকে চিঠি পাঠানোর পর দুদকে কার্যক্রম শুরু হয়। ২০১৭ সালের ৮ জুন ও ১২ আগস্ট যথাক্রমে আপন জুয়েলার্সের বিরুদ্ধে দ্য কাস্টমস অ্যাক্ট, ১৯৬৯ ও মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে ১০ মামলা দায়ের করে শুল্ক গোয়েন্দা।

সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে আপন জুয়েলার্সের পাঁচটি শোরুম থেকে অবৈধ ১৫ মণ স্বর্ণ ও হীরার অলঙ্কার জব্দ করে শুল্ক গোয়েন্দা।



ফেইসবুকে আমরা