বাংলাদেশ, , শনিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৯

শানে মোস্তফা (স.) গ্রন্থের পর্যালোচনা : অধ্যক্ষ মোহাম্মদ ইউনুছ কুতুবী

  প্রকাশ : ২০১৮-১২-১৫ ১১:৫৩:৪০  

পরিস্হিতি২৪ডটকম : মহান রাব্বুল আলামীন এর প্রিয় হাবিব নবী করিম (স.)। আল্লাহ চান সবসময় তাঁর বান্দারা তাঁর হাবিব (স.) কে স্মরণ করুক, যাতে তাঁর হাবিবের শান-মান প্রকাশ পায়। যেহেতু নবী করিম (স.) জগতবাসীর জন্য রহমতস্বরূপ। তাই যুগে যুগে মানুষ বিভিন্নভাবে রাসুল (স.) কে স্মরণ করে আসছে। রচিত হয়েছে হাজার হাজার গ্রন্থ, কবিতা, গজল ইত্যাদি। কিয়ামত পর্যন্ত এভাবে চলতে থাকবে। বিশিষ্ট ইতিহাসবিদ বহুগ্রন্থের লেখক চট্টগ্রাম ইতিহাস চর্চা কেন্দ্রের সভাপতি সোহেল মো. ফখরুদ-দীন রাসুল করিম (স.) শান, মান, মর্যাদাসম্পন্ন জগদ্বিখ্যাত পণ্ডিতদের রচিত কবিতা এবং তাঁর সংক্ষিপ্ত জীবনী নিয়ে রচনা করেছেন শানে মোস্তফা (স.)। গ্রন্থটি পাঠক সমাজে অত্যন্ত সমাদৃত হয়েছে। এ গ্রন্থে তিনি নবী করিম (স.) এর জন্ম থেকে আল্লাহর সান্নিধ্যে চলে যাওয়ার পূর্ব পর্যন্ত সম্পূর্ণ জীবনী সংপ্তি আকারে তুলে ধরেছেন। মহানবী (স.) বাল্যকালে কোন গোত্রে লালিত পালিত হয়েছেন, কার তত্ত্বাবধানে পালিত হয়েছেন এবং বাল্যকালের কার্যাবলী সুনিপুণভাবে পালন করেছেন তাও তুলে ধরেছেন। মহানবী (স.) এর অনুপম চরিত্র, অনন্য ব্যক্তিত্ব, সকলের বিশ্বাসী এবং প্রতিবেশীদের সম্মানীয় ছিলেন তাও নিখুঁতভাবে তুলে ধরেছেন। মহানবী (স.) এর নবুয়তপ্রাপ্ত ইসলাম প্রচার, তায়েফে হিজরত, পরিবার-পরিজন-প্রতিবেশী বন্ধুবর্গদের কাছে ঈমানের দাওয়াত দেওয়া, নির্যাতন ভোগ করা, হাবশায় হিজরত, বাদশা নাজ্জাশীর সম্মান দেওয়া রোম সম্রাট হেরকলের কাছে ইসলামের দাওয়াতপত্র পৌঁছানো থেকে শুরু করে মদিনায় হিজরত করা পর্যন্ত অত্যন্ত দতার সাথে এ গ্রন্থে তুলে ধরেছেন। মহানবী (স.) মাদানি জীবনের সংক্ষিপ্ত কাহিনী যেমন মদিনায় সর্বপ্রথম মসজিদ নির্মাণ, মোহাজির ও আনসার ভ্রাতৃত্বে বন্ধন, মদিনায় ইসলামী রাষ্ট্র গঠন, প্রত্যেক জাতিকে একত্রীকরণের জন্য মদিনাসনদ করা, বিনা যুদ্ধে মক্কা বিজয়ের জন্য হুদায়বিয়ার সন্ধি স্থাপন এবং পরবর্তী সময়ে মক্কা জয় করে সকলকে মা করে দিয়ে তাদের সহানুভূতিশীল ও ভ্রাতৃত্বসুলভ আচরণ করে মানুষকে দলে দলে ইসলামের (আল্লাহর দ্বীনের) পতাকা তুলে এনে ইসলামের সেবা করেছেন তা অত্যন্ত নিখুঁতভাবে তুলে ধরেছেন। যা একজন সুলেখকের দ্বারাই সম্ভব। বিশ্বকবি শেখ সাদি (র.) রাসুল প্রেমে আবেগাপ্লুত হয়ে যে ‘বালাগাল উলা…ওয়া আলিহি’ লিখেছিলেন তাও এ গ্রন্থে তিনি তুলে ধরেছেন, যার বাংলা অনুবাদ করে দিয়েছেন, যাতে পাঠকসমাজ সহজে বুঝে নবীর উপর দরুদ পাঠ করে নিজেকে ধন্য করতে পারে। এ গ্রন্থে তিনি কাজী নজরুল ইসলাম রচিত রাসুল (স.) এর শান সম্পর্কিত নাত-ই-রাসুল (স.)ও তুলে ধরেছেন। যেমন: ত্রিভুবনের প্রিয় মুহাম্মদ এলরে দুনিয়ায়, নাম মোহাম্মদ বলরে মন, আমেনা মায়ের কোলে, ওরে দরিয়ার মাঝি, মোরে নিয়ে যারে মদীনা, মোহাম্মদ মোর নয়ন মণি, মোহাম্মদ নাম যতই জপি ইত্যাদি। কবি আলাদীন আলী নুর এর বিখ্যাত নাত-ই-রাসুল (স.) তার গ্রন্থে তুলে ধরেছেন যা পাঠকসমাজে অত্যন্ত সমাদৃত হয়েছে। সোহেল মো. ফখরুদ-দীনের বিশেষ উল্লেখযোগ্য যে, হুজুর (স.) এর ঘোষণাকৃত দশজন জান্নাতি সাহাবী আশরা-ই-মুবাশ্শরার উল্লেখযোগ্য সাহাবী হযরত সাদ ইবনে আবি ওয়াক্কাস (রা.) আরো দুজন সঙ্গী নিয়ে নৌপথে চট্টগ্রামে এসে চট্টগ্রামবাসীর নিকট ইসলামের অমূল্য বাণী পৌঁছে দিয়েছেন; তাঁর এ চট্টগ্রামে আগমন সম্পর্কে সুন্দর ও সুচারুভাবে প্রমাণভিত্তিক হাদিস শরীফসহ শানে মোস্তফা (স.) গ্রন্থে তুলে ধরেছেন। সাথে সাথে চট্টগ্রামের সাথে বাহির দেশের যোগাযোগ ও সাগর নদী পাহাড় ঘেরা নয়নাভিরাম অবতলের বর্ণনা ও দক্ষতার সাথে তুলে ধরেছেন। চট্টগ্রাম যে বার আউলিয়ার দেশ, এখানে আউলিয়া কেরামগণ কিভাবে ইসলামের প্রচার করেছেন, কীভাবে এসেছেন, তাঁরা কোথায় কোথায় অবস্থান করেছেন, ইসলামের বাণী সাধারণের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন তা স্পষ্টভাবে এ গ্রন্থে তুলে ধরেছেন। যার ফলে এতদঅঞ্চলের মানুষ জানতে পারবে চট্টগ্রামে মুসলমানদের আগমন এবং ইসলাম প্রচারের প্রকৃত ও সঠিক ইতিহাস। শানে মোস্তফা (স.) গ্রন্থটির মূল্য ২২০ টাকা। চট্টগ্রামের সাজিদ আলী প্রকাশন থেকে বইটি প্রকাশিত হয়েছে মহান ১২ রবিউল আউয়াল ২০১৮। আমি বইটির সফলতা কামনা করছি।

লেখক: অধ্যক্ষ মোহাম্মদ ইউনুছ কুতুবী, শিক্ষাবিদ ও ইতিহাসবিদ, সভাপতি : বাংলাদেশ ইতিহাস চর্চা পরিষদ, কক্সবাজার জেলা শাখা।



ফেইসবুকে আমরা