বাংলাদেশ, , শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

শিরোনাম

বিপিএল আকর্ষণীয় হল নতুন প্রযুক্তির ব্যবহারে

  প্রকাশ : ২০১৯-০২-০৭ ১৬:১৭:৩৯  

পরিস্হিতি২৪ডটকম : বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-টোয়েন্টি এখন পর্দা নামার অপেক্ষায়। আগামীকাল শুক্রবার শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ঢাকা ডায়নামাইটস ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মধ্যে হবে এই ম্যাচ। চলতি বিপিএল নানা কারণে ছিল ছিল আকর্ষণীয়।

এর মধ্যে ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম (ডিআরএস) যুক্ত হওয়াসহ বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে প্রযুক্তি এবার দর্শকদের নজর কেড়েছে। তাছাড়া এই প্রতিযোগিতার মানকে নিয়ে গেছে আইপিএল বা বিগব্যাশসহ অন্যদের লেভেলে।

সম্প্রচারে এবার বাড়ানো হয় ক্যামেরার সংখ্যা। আগের আসরগুলোয় যেখানে ১৭-১৮টি ক্যামেরা ব্যবহার হয়, সেখানে এবার হচ্ছে ৩৫টি। এর মধ্যে ১৮টিই ছিল মানুষ দ্বারা চালিত। তাই তীক্ষ্ণ নজরদারির মাধ্যমে গোটা মাঠ দৃশ্যমান হয়েছে।
গ্রাফিকসেও ভিন্নতা এসেছে। প্রথমবারের মতো ব্যবহৃত হচ্ছে ড্রোন ক্যামেরা, এতে উপরের ভিউ দেখা যাচ্ছে। ব্যবহৃত হচ্ছে স্পাইডার ক্যাম, যার মাধ্যমে বিভিন্ন অ্যাঙ্গেলে খেলা দেখা যাচ্ছে। দুই দলের ডাগআউটে থাকছে একটি করে রোবোটিক ক্যামেরা।

সম্প্রচারকরা ব্যবহার হচ্ছে দ্বিমুখী আল্ট্রা-মোশন ক্যামেরা। এতে জনাকীর্ণ স্টেডিয়ামে প্রচণ্ড হৈচৈ ও গোলযোগের মধ্যেও সবকিছু পরিষ্কারভাবে বোধগম্য হয়ে উঠছে অফফিল্ড ও অনফিল্ড আম্পায়ারদের কাছে। তাৎক্ষণিক সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন তারা।

এলইডি স্ট্যাম্প ব্যবহারে কোনো কিছুর আঘাত লাগলেই জ্বলে ওঠছে গ্লোয়িং বেল (জিং বেইলস)। বিপিএলে প্রথমবার ব্যবহৃত হচ্ছে দ্বিমুখী স্ট্যাম্প ক্যামেরা। এতে ক্রিজের সামনে-পেছনে কী ঘটছে তার প্রকৃত চিত্র ফুটে উঠছে।

ডিসিশন রিভিউ সিস্টেমও (ডিআরএস) এবারই প্রথম ব্যবহার হচ্ছে বিপিএলে। তাই আম্পায়ারিং নিয়েও আর তেমন প্রশ্ন ওঠছে। ক্ষুব্ধ হলে রিভিউ নেয়ার সুযোগ থাকছে।



ফেইসবুকে আমরা