বাংলাদেশ, , সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯

যৌনপল্লীতে পর্যটকদের প্রবেশ বন্ধ করতে যৌনকর্মীদের প্রতিবাদ

  প্রকাশ : ২০১৯-০৪-০৩ ১৮:১৪:১৫  

পরিস্হিতি২৪ডটকম : ভ্রমণপ্রিয় ও ফুর্তিবাজদের জন্য আমস্টারডাম এক কাঙ্ক্ষিত শহর। নেদারল্যান্ডসের রাজধানী আমস্টারডাম শহরে যেমন রয়েছে ঐতিহাসিক গুরুত্ব তেমনি রয়েছে আধুনিক জীবনে অনন্দের সবকিছু। এই শহরেই বিশ্বের সেরা সুন্দরী দেহ ব্যবসায়ীদের দেখা মেলে। এখানে দেহ ব্যবসা সম্পূর্ণ বৈধ ও সরকার নিয়ন্ত্রিত বলে অত্যন্ত নিরাপদ। এখানকার যৌন ব্যবসার খ্যাতি সারাবছর কয়েক কোটি পর্যটককে আকর্ষণ করে। কিন্তু সম্প্রতি যৌনপল্লীতে পর্যটকদের প্রবেশ বন্ধ করা হোক; এই মর্মে প্রতিবাদে গর্জে উঠল সেখানকার যৌনকর্মীরা।
আমস্টারডামে যৌনপল্লীর যৌনকর্মীরা নিজেরাই চাইছেন না; তাদের কাজের এলাকায় ট্যুরিস্ট ট্যুর হোক। কোনভাবেই আর পর্যটকদের ঢুকতে দেওয়া হবে না রেড লাইট এলাকায়। এমনকি তারা বিভিন্ন ট্র্যাভেল এজেন্সিকেও এ ব্যাপারে সতর্ক করেছেন। যৌনকর্মীদের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগও জমা পড়েছে সরকারের কাছে। এমনকি গোটা আমস্টারডামে এখন বিতর্ক তুঙ্গে। যৌনকর্মীদের প্রতিবাদের ঝড় গিয়ে পৌঁছেছে পার্লামেন্টেও।

যৌনকর্মীদের অভিযোগ, ট্যুরিস্টদের যৌনপল্লীতে আসার ফলে অবশ্যই ইনকাম বৃদ্ধি হয়। কিন্তু যৌনকর্মীদের সঙ্গে খুবই খারাপ ব্যবহার করে বেশিরভাগ পর্যটক। যৌনতার নামে অনেক সময়ই অত্যাচার করতে শুরু করে পর্যটকরা।
তবে এই অভিযোগ নিয়ে দু’ভাগে ভাগ হয়েছে বেশ কিছু যৌনকর্মীরা। অনেকে মনে করছেন, পর্যটকদের আসা বন্ধ হলে আয় কমবে। এতে উল্টে ক্ষতিই হবে।

যৌনকর্মীরা এই অভিযোগ নিয়ে বিভিন্ন প্রতিবাদী মিছিলের আয়োজন করেছে। গোটা শহর জুড়ে ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে পোস্টার।

আমস্টারডামের সেক্স মিউজিয়াম গোটা বিশ্বে জনপ্রিয়। এই সেক্স মিউজিয়াম দেখার জন্য বিশ্বের নানা জায়গা থেকে পর্যটকরা আসেন। সেক্স শোও বেশ জনপ্রিয়। তবে এগুলোতে পর্যটকদের ট্যুরে আপত্তি না থাকলেও, পর্যটকদের সঙ্গে যৌনতায় আপত্তি করেছেন বেশ কিছু যৌনকর্মী।



ফেইসবুকে আমরা