বাংলাদেশ, , রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯

মাইজভান্ডারী দর্শনের সঠিক চর্চা ও প্রয়োগের মাধ্যমে সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব : ডা. সৈয়দ দিদারুল হক মাইজভান্ডারী

  প্রকাশ : ২০১৯-০৮-০৩ ১৭:১০:৪২  

পরিস্হিতি২৪ডটকম : মাইজভান্ডারী তরিকার প্রতিষ্ঠাতা প্রাণপুরুষ হযরত গাউসুল আজম মাওলানা শাহসূফি সৈয়দ আহমদ উল্লাহ মাইজভান্ডারী (ক)’র ১১৭ তম চান্দ্রবার্ষিকী ওরশ শরীফ ৩১ জুলাই বুধবার যথাযথ ধর্মীয় মর্যাদায় ও ভাব গাম্ভীর্যের সাথে মাইজভান্ডার শরীফে শান-এ গাউসুল আজম মাইজভান্ডারী ফোরামের আয়োজন-ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে খতমে কোরান, খতমে বোখারী, আলোচনা, মিলাদ-মাহফিল, জিকির আজকার, সেমা মাহফিল, আখেরী মুনাজাত ও তবরুক বিতরণের আয়োজন করা হয়। সংগঠনের চেয়ারম্যান হযরত শাহসূফি ডা. সৈয়দ দিদারুল হক মাইজভান্ডারী (মা.জি.আ)’র সভাপতিত্বে এবং প্রফেসর সৈয়দ সফিউল গনি চৌধুরী ও সৈয়দ মীর জসিম উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মাহফিলে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিনিয়র ভাইস- চেয়ারম্যান হযরত শাহসূফি সৈয়দ সহিদুল হক মাইজভান্ডারী (মা.জি.আ.)। আলোচনা করেন মাওলানা সৈয়দ ফরিদুল আবসার আমিরী, সৈয়দ নঈমুল কুদ্দুস আকবরী, মাওলানা ইব্রাহীম আল কাদেরী, শেখ শহিদুল্লাহ ফারুকী প্রমুখ। সভাপতি তাঁর বক্তব্যে বলেন, মাইজভান্ডারী তরিকার উৎপত্তি এবং বিকাশের ধারাবাহিকতায় খোলাফায়ে গাউসুল আজম মাইজভান্ডারীগণের অনবদ্য অবদানের ফলশ্রুতিতে এই তরিকার আলো আজ বাংলাদেশের আনাচে-কানাচে সহ বহির্বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। গাউসুল আজম মাইজভান্ডারীর শান-আজমতকে সুসংহত করার লে সবাইকে সচেষ্ট হতে হবে। বক্তাগণ বলেন, মাইজভান্ডারী দর্শনের সঠিক চর্চা ও প্রয়োগের মাধ্যমে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ সহ সকল অনৈতিক কর্মকান্ড অপনোদন করে সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব। এতে মাইজভান্ডার দরবার শরীফ, চরন্ধীপ দরবার, আমির ভান্ডার, ফরহাদাবাদ দরবার, আজিম নগর দরবার, হযরত আব্দুল গনি চৌধুরী মাইজভান্ডারী দরবার, কাঞ্চন নগর দরবার, হাওলাপুরী দরবার, আহলা দরবার, ধলই আমিন ভান্ডার দরবার, মির্জাপুর দরবার, সাতগাছিয়া দরবার, রহমানিয়া দরবার, হাফেজনগর দরবার, রাহেভান্ডার, হাকিম শাহ্ দরবার, হারবাঙ্গিরী দরবার, তফজ্জল আহমদ চৌধুরী দরবার, আনসুর আলী শাহ্ দরবার, হযরত নবিদর রহমান শাহ দরবার, দরবারে আজিজিয়া, ছোবহানীয়া দরবার, হযরত আব্দুর রশিদ শাহ্ দরবার, মতি ভান্ডার দরবার, আবদুল হামিদ শাহ্ দরবার, মোস্তাফিজুর রহমান শাহ দরবার, ফতেহপুর দরবার, দরবারে কামালিয়া, রুহুল ভান্ডার দরবার, নজির ভান্ডার দরবার, আবদুল লতিফ শাহ দরবার, মবিন ভান্ডার, জিন্নাত আলী শাহ দরবার, গোমদন্ডী দরবার সহ ৫০টি দরবারের প্রায় দুইশত আওলাদ ও অসংখ্য আশেক-ভক্ত উপস্থিত ছিলেন। পরিশেষে বাংলাদেশের জনগনের সুখ-সমৃদ্ধি ও বিশ্ব শান্তি কামনা করে বিশেষ মুনাজাত পরিচালনা করা হয়।
প্রেস বিজ্ঞপ্তি



ফেইসবুকে আমরা