বাংলাদেশ, , শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বলিউডে সোনাক্ষীকে অতিরিক্ত ওজনের কারণে বাঁকা বাঁকা অনেক মন্তব্য শুনতে হয়েছে !

  প্রকাশ : ২০২০-০১-০৯ ১৯:১১:৫৪  

পরিস্হিতি২৪ডটকম : সোনাক্ষী সিনহা বলিউডে পা রেখেই বাজিমাত করেছিলেন। কিন্তু তার অতিরিক্ত ওজনের কারণে বাঁকা বাঁকা অনেক মন্তব্য শুনতে হয়েছে তাকে। এরপর সোনাক্ষীর প্রথম সিনেমা ‘দাবাং’-এর নায়ক সালমান খানও তাকে ওজন কমাতে সাহায্য করেন। খুব অল্প সময়েই দাবাং তারকা প্রায় ৩০ কেজি ওজন কমিয়েছেন। কিন্তু তারপরও মোটা নায়িকার তকমা শুনতে হয় তাকে।

এ বিষয়ে সোনাক্ষী সিনহা বলেন, ‘আমার কোমরের মাপ যা-ই হোক না কেন, আমাকে সবসময়ই মোটা বলা হয়। এটি সত্যিই খুব দুঃখজনক। এক সময় সত্যিই আমার ওজন অনেক বেশি ছিল, তবে বলিউডে অভিষেকের আগে আমি বাড়তি ওজন ঝরিয়েছি।’

বলিউডে আসার সময় সোনাক্ষীর ওজন ছিল ৯০ কেজি। কিন্তু তিনি খুব অল্প সময়েই ৬০ কেজিতে নামিয়ে এনেছেন। এজন্য তাকে খুব পরিশ্রমও করতে হয়েছে। দিনে অন্তত দু-বার জিমে গিয়েছেন। খেয়েছেন নিয়মমাফিক প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার। ওজন বেশি হওয়ায় সব জায়গায় অনেক বিদ্রুপ করা হতো তাকে, তাই অন্তত ৩ মাস ওজন কমানোই ছিল তার মূল কাজ।

এই অভিনেত্রী বলেন, ‘এরপরও লোকে যখন বলে যে, অভিনেত্রী হিসেবে আমি বেশ মোটা, তা আমাকে আঘাত করে। হ্যাঁ, আমি আগে মোটা ছিলাম, কিন্তু রূপালি পর্দায় আসার আগে আমি অতিরিক্ত ওজন ঝরিয়েছি। তাছাড়া ওজনের সঙ্গে মেধার কোনো সম্পর্ক নেই। তবে অবশ্যই তোমার মেধা থাকতে হবে!’

সোনাক্ষীর আরেক পরিচয় রয়েছে ভোজনরসিক হিসেবে। কিন্তু খুব দ্রুত ওজন কমাতে গিয়ে তার প্রিয় অনেক খাবার খাদ্য তালিকা থেকে বাদ দিতে হয়েছে। জিমে যাওয়া একটি অপছন্দের কাজ হলেও করতে হয়েছে। সুষম এবং উচ্চ প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খেয়ে নিজেকে ফিট রেখেছেন সোনাক্ষী। তারপরও ওজন নিয়ে কটাক্ষ শুনতে হচ্ছে এই নায়িকাকে।

সোনাক্ষীকে সর্বশেষ বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের বিপরীতে দাবাং থ্রি ছবিতে অভিনয় করতে দেখা গেছে। গত বছরের ২০ ডিসেম্বর মুক্তি পেয়েছে ছবিটি। এরইমধ্যে ১০০ কোটি রুপির মাইলফলক স্পর্শ করেছে দাবাং থ্রি সিনেমাটি।



ফেইসবুকে আমরা