বাংলাদেশ, , মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯

চবির ৫০ শিক্ষার্থী গিরিপথে ছিনতাইয়ের শিকার,আহত ৮

  প্রকাশ : ২০১৯-০৪-২৭ ১৯:০৮:৩৭  

পরিস্হিতি২৪ডটকম : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) পার্শ্ববর্তী চালন্দা গিরিপথে ঘুরতে গিয়ে ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছেন বিভিন্ন বর্ষের ৫০ জন শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় আঘাতে আহত হয়েছেন আটজন। এদের মধ্যে মাথায় কোপের আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের আনোয়ার হোসেন। বর্তমানে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে (চমেক) ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া ছিনতাইয়ের ঘটনায় শিক্ষার্থীদের অন্তত ২০টি মোবাইল খোয়া গেছে।
শনিবার (২৭ এপ্রিল) দুপুর ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ও মানববিদ্যা অনুষদ ঝুপড়ির পেছন থেকে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরে চালন্দা গিরিপথে এ ঘটনা ঘটে। পরে আহতাবস্থায় দুই ঘণ্টা পর তারা ক্যাম্পাসে পৌঁছালে এ খবর জানা যায়।
আহতরা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের আনোয়ার হোসেন, একই বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের মনিরুজ্জামান মনির, ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের সৌরভ দাশ। এদের মধ্যে আনোয়ারের মাথায় ও হাতে গুরুতর জখম থাকায় তাকে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসাকেন্দ্রের কর্তব্যরত চিকিৎসক মোস্তফা কামাল।
বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নৃবিজ্ঞান বিভাগের বিভিন্ন বর্ষের প্রায় ৪০ জন শিক্ষার্থী পাহাড়ি ঝর্ণা দেখতে চালন্দা গিরিপথে দিকে রওনা হন। এদের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীও যোগ দেয় তাদের মধ্যে ১৫ জন ছাত্রীও ছিলেন। তাদের হাতে লাঠিসোঁটা ছিল।
সেখান থেকে ফেরার পথে বন্দুকধারী ১৫-১৬ জন ছিনতাইকারী তাদের পথরোধ করে বেশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলিও ছোড়ে। এ সময় শিক্ষার্থীদের মধ্যে নৃবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের আনোয়ার হোসেন প্রতিবাদ করতে চাইলে তাকে রামদা দিয়ে কুপিয়ে জখম করা হয়। একই সঙ্গে বেশ কয়েকজনকে বন্দুকের বাঁট ও রামদা দিয়ে আঘাত করা হয়। ছিনতাইকারীরা শিক্ষার্থীদের কাছে থাকা অন্তত ২০টি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়।
এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী আজগর চৌধুরী বলেন, বিষয়টি শুনে পুলিশকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। আমরা বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি। ইতোমধ্যেই পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।



ফেইসবুকে আমরা