বাংলাদেশ, , রোববার, ১৯ মে ২০১৯

চন্দনাইশে প্রিন্সিপাল আবুল কাসেম বইমেলা সম্পন্ন

  প্রকাশ : ২০১৯-০২-২৪ ১৬:১৮:০০  

পরিস্হিতি২৪ডটকম : চন্দনাইশে তিন দিন ব্যাপী প্রিন্সিপাল আবুল কাসেম বইমেলা পৌর শহিদ মিনার ও শাহ আমিন পার্কে সমাপনী অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে ২১ ফেব্রুয়ারি সমাপ্ত হয়েছে। তৃতীয় দিনের অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রিন্সিপাল আবুল কাসেম ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ বিন কাসেম। প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম-১৪ আসনের মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম চৌধুরী। প্রধান আলোচক ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগের চেয়ারম্যান ড. প্রফেসর সুকান্ত ভট্টাচার্য্য। বিশেষ অতিথি ছিলেন গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজের সাবেক অধ্য ছৈয়দ আবু সাদেক মো. মুছা, পিপিএস নির্বাহী পরিচালক নুরুল হক চৌধুরী, সাংবাদিক এডভোকেট মো: দেলোয়ার হোসেন, সাংবাদিক সৈয়দ শিবলী ছাদেক কফিল ও আওয়ামীলীগ নেতা জসিম উদ্দিন। দিনব্যাপী অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সংগঠক তানভির আহমদ সিদ্দিকী। অন্যদের মধ্যে মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন যুবলীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, লোকমান হাকিম, শিকিা সাদিয়া সুলতানা, তানিয়া বেগম চৌধুরী, সাংবাদিক কামরুল ইসলাম মোস্তাফা, শিল্পী সাইফুল ইসলাম তুষার প্রমুখ।
প্রধান অতিথি নজরুল ইসলাম চৌধুরী এমপি বলেন, বাংলাদেশ, বাংলা ভাষা ও বাঙ্গালি জাতি একই সূত্রে গাঁথা। প্রিন্সিপাল আবুল কাসেমের নেতৃত্বে ভাষা আন্দোলনের সূচনা হয়েছিল ১৯৪৭ সালে। এ আন্দোলনেই ১৯৫২ সালে ২১ ফেব্রুয়ারি শোকাবহ ও গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসের সৃষ্টি হয়। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীন বাংলাদেশের জন্ম হলে সব আন্দোলন সংগ্রামের মূল্যায়ন শুরু হয়। তাঁরই সুযোগ্য কন্যার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ প্রত্যেকেই কৃতজ্ঞার সাথে মূল্যায়ন করছেন।
সাংসদ নজরুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, বইমেলা গণমানুষকে বই প্রেমী করে। ইতিহাসকে জানতে ও জ্ঞান অর্জনে উৎসাহ যোগায়। তাই এই ধরণের মেলাগুলোকে চলমান রাখা উচিৎ।
মেলা উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচীতে ছিল আলোচনা সভা, কবিগান, পুঁথিপাঠ, জারিগান, বিতর্ক প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান এবং ঐতিহাসিক ছবি প্রদর্শনী ইত্যাদি। এছাড়াও এতে বইসহ বিভিন্ন জিনিষপত্রের বিকিকিনির মেলা বসে।



ফেইসবুকে আমরা