বাংলাদেশ, , মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯

চট্টগ্রামের তিন কালজয়ী মণীষীর মৃত্যুবার্ষিকীর আলোচনা সভা অনুষ্টিত

  প্রকাশ : ২০১৯-০১-২৪ ১৯:৫৪:২০  

পরিস্হিতি২৪ডটকম : চট্টগ্রামের ইতিহাসে কালজয়ী ঐতিহাসিক ব্যাক্তিত্ব মহাকবি নবীন চন্দ্র সেন, কবি ও ইতিহাসবিদ ওহীদুল আলম ও জাতীয় অধ্যাপক ডাঃ নুরুল ইসলাম সহ এই তিন জনের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা চট্টগ্রাম ইতিহাস চর্চা কেন্দ্রের উদ্যোগে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার সংলগ্ন একটি রেস্তোরায় বিশিষ্ট ইতিহাস গবেষক অধ্যক্ষ মুহাম্মদ ইউনুচ কুতুবীর সভাপতিত্বে ২৪ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার বিকেলে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিএইচআরসির সভাপতি বিশিষ্ট ইতিহাসবিদ সোহেল মুহাম্মদ ফখরুদ-দীন। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গ্রন্থ প্রণেতা ও প্রাবন্ধিক সাংবাদিক একেএম আবু ইউসুফ। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন মোঃ আবদুর রহিম, এডভোকেট খায়ের আহমেদ, মৌলভী আবদুল কাদের, ইমাম মোহাম্মদ আব্দুল হালিম, সাংবাদিক সৈয়দ শিবলী ছাদিক কফিল, কবি শাহনুর আলম, নয়ন বড়ুয়া, সাংবাদিক অনুতোষ দত্ত বাবু, মাস্টার আজিজুর রহমান, শিক্ষাবিদ মোহাম্মদ শরীফুল কাদের, প্রাবন্ধিক এস এম ওসমান, সিরাজুল ইসলাম, সফিকুল ইসলাম চৌধুরী, আলমগীর হোসাইন, হায়াত মাহমুদ, মাওলানা আনোয়ার হোসেন, কাজী নুরুল আনোয়ার, কবি মরিয়ম বেগম, লুৎফুর রহমান, অমর কান্তি পাল, বরুণ কুমার ভট্টাচার্য শংকু, প্রবীর দে, মোঃ নুরুল আলম প্রমূখ। স্মরণ আলোচনা সভায় বক্তারা বলেছেন, আজ ২৪ জানুয়ারি ছিল চট্টগ্রামের নজন্মা এই তিন মণীষীর প্রয়ান দিবস। বক্তারা বলেছেন, মহাকবি নবীন চন্দ্র সেন সাহিত্য কর্মের মধ্য দিয়ে চট্টগ্রামকে বিশ্বব্যাপী পরিচিত করেছেন। কবি ও ইতিহাসবিদ ওহীদুল আলম চট্টগ্রামের ইতিহাস প্রণয়নের মাধ্যমে চট্টগ্রামের ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে বর্তমান প্রজন্মের জন্য সম্পদ বিবেচনায় রেখে গেছেন। জাতীয় অধ্যাপক ডাঃ নুরুল ইসলাম চিকিৎসা বিজ্ঞান ও চট্টগ্রামে ইউএসটিসি প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে কালজয়ী ভূমিকা রেখেছেন। এই সমস্ত মহামণীষীদের জীবনকর্ম মূল্যায়ন ও বর্তমান প্রজন্মের নিকট পৌঁছে দিতে পারলে প্রজন্ম সমৃদ্ধ ইতিহাস জানতে পারবে এবং নিজেদের সুন্দর জীবন গড়তে সহায়ক হবে। সভার শুরুতে প্রয়াত তিন মণীষীর আত্মার শান্তি কামনা করে দাঁড়িয়ে সম্মান প্রদর্শন করা হয়।
প্রেসবিজ্ঞপ্তি



ফেইসবুকে আমরা